Text size A A A
Color C C C C
পাতা

কী সেবা কীভাবে পাবেন

 

ক) সংগ্রহ  

     খাদ্য বিভাগের আওতাধীন বিভিন্ন এলএসডি সমূহে ধান, চাল এবং গম সংগ্রহ করা হয়। সংগ্রহ মৌসুমের মধ্যে প্রকৃত কৃষকদের নিকট হতে আগে আসলে আগে ক্রয় করা হবে ভিত্তিতে বিনির্দেশ মোতাবেক ধান এবং গম ক্রয় করা হয় এবং ডব্লিউ,কিউ,এস,সি (ওজন, মান মজুদ সনদ) এর মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করা হয়। চাল ক্রয়ের ক্ষেত্রে বৈধ চালকল লাইসেন্সধারী চাল উৎপাদনে নিয়োজিত (সচল) চালকল মালিকদের নিকট থেকে চুক্তি সম্পাদন করে প্রতিটি চাল কলের পাক্ষিক মিলিং ক্ষমতানুযায়ী প্রাপ্য চালের সংগ্রহ মূল্যের ২% এবং প্রয়োজনীয় সংখ্যক খালিবস্তার জামানত গ্রহণপূর্বক বিনির্দেশ মোতাবেক চাল ক্রয় করা হয় এবং ডব্লিউ,কিউ,এস,সি (ওজন, মান মজুদ সনদ) এর মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করা হয়।  

(খ) খাদ্য শস্য ব্যবসার জন্য ফুড গ্রেইড লাইসেন্স  

খাদ্য শস্য মজুদ বিরোধী আদেশ বাতিল ও খাদ্যশস্য লাইসেন্স রহিতকরন সংক্রান্ত খাদ্য মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন বাতিল পূর্বক সরকার The Bengal East (Food stuffs) price control and Anti Hoarding Order. 1953 GiParagraphs. 5 এ প্রদত্ত ক্ষমতা বলে Food Grain লাইসেন্স প্রথা পুন প্রর্বতন করে এবং উক্ত লাইসেন্স ব্যতিরেকে কোন ব্যবসায়ী ( আমদানী কারণ, পাইকারী ব্যবসায়ী, খুচরা ব্যবসায়ী, চালকল মালিক, ময়দাকল মালিক এবং ও,এম,এস ডিলার) তার ধান/চাল, গম/গমজাতদ্রব্য, চিনি, (পরিশোধিত) ভোজ্য তেল (সয়াবিন, পামওয়েল) এবং ডাল এর ব্যবসার কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারবে না। জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃক আমদানী কারক, পাইকারী ব্যবসায়ী/আড়তদার, ময়দাকল, চালকল এবং ওএমএস ডিলারদের উক্ত লাইসেন্স প্রদান করা হয়। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃক খুচরা ব্যবসায়ী ও আটা চাক্কি মালিকদের উক্ত লাইসেন্স প্রদান করা হয়। অনুমোদিত প্রত্যেক লাইসেন্সধারী ব্যবসায়ীগণ খাদ্য সামগ্রী আমদানী, ক্রয়, মজুদ ও বিক্রয়ের হিসাব লাইসেন্স প্রদাকারী কর্তৃপক্ষের নিকট পাক্ষিক ভিত্তিতে প্রতিবেদন দাখিল করেন এবং খাদ্য বিভাগ প্রতিবেদন অনুযায়ী তদারকী করেন।

গ) চাল কল লাইসেন্স

 চাল সংগ্রহ ও নিয়ন্ত্রন আদেশ ২০০৮ অনুযায়ী কোন ব্যক্তি কর্তৃক শক্তিচালিত যন্ত্রপাতি দ্বারা ধান ছাঁটাই করন, ধান ও চাল ক্রয় বিক্রয় এবং চালজাত দ্রবাদী প্রস্ত্তত করন ও বিক্রয় সংক্রামত্ম ব্যবসা পরিচালনা করার জন্য খাদ্য বিভাগ হতে চাল কল লাইসেন্স গ্রহণ করতে হয়। জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্তৃক উক্ত চাল কল লাইসেন্স প্রদান করা হয়। লাইসেন্স প্রাপ্তির জন্য নির্ধারিত ফর্মে আবেদনসহ সরকার কর্তৃক নির্ধারিত লাইসেন্স ফিস সরকারী ট্রেজারী চালানের মধ্যেমে জমা প্রদান করতে হয় এবং প্রতি বৎসর জুন মাসে নবায়নের জন্য সরকারী ট্রেজারী চালানের মাধ্যমে নবায়ন ফিস জমা প্রদান করতে হয়।

 

ঘ) ফেয়ারপ্রাইস কার্ড (জেলা সদর ও ইউনিয়ন)

 সরকারী নির্দেশানুযায়ী জেলা সদর এবং উপজেলার ইউনিয়ন পর্যায়ে সাধারন ভোক্তদের সুবিধার্থে ফেয়ার প্রাইস  কার্ডের মাধ্যমে খাদ্য শস্য সরকার কর্তৃক নির্ধারিত দরে সরবরাহ করা হয়।

ঙ) ফেয়ারপ্রাইস কার্ড ( ৪র্থ শ্রেণী সরকারী কর্মচারী)

সরকারী নির্দেশনুযায়ী জেলা সদর এবং উপজেলায় কর্মরত সরকারী ৪র্থ শ্রেণী কর্মচারীদের মধ্যে কার্ডের মধ্যেমে খাদ্য শস্য সরকার কর্তৃক নির্ধারিত দরে সরবরাহ করা হয়।

ঙ) অন্যান্য সংস্থার রেশন   

পুলিশ,বিজিবি, জেল খানা, দমকল বাহিনী ও আনসারদের রেশনের খাদ্য শস্য সরবরাহ করা হয়।  

চ) ও.এম.এস কার্যক্রম  

নির্ধারিত ডিলারের মাধ্যমে সাধারন ভোক্তদের মধ্যে সরকারী নির্ধারিত মূল্যে খাদ্য শস্য (চাল ও আটা) বিক্রি করা হয়। ডিলারগন এলএসডি হতে চাল উত্তোলন করে বিক্রয় করেন। মিলারগণ এলএসডি হতে গম উত্তোলন করে পেষাই করতঃ ওএমএস ডিলারগণকে সরকার নির্ধিরিত মূল্যে সরবরাহ করে এবং ওএমএস ডিলারগণ উক্ত আটা সরকার নির্ধিরিত মূল্যে বিক্রি করেন।

ছ) অন্যান্য কর্মসূচীর খাদ্য শষ্য সরবরাহ

 ভিজিডি, ভিজিএফ, জিআর, কাবিখা, টিআর কর্মসূচীর আওতায় খাদ্যশস্য সরবরাহ করা হয়। ডিও হোল্ডারগন এলএসডি হতে খাদ্যশস্য উত্তোলন করেন।